Motorola Edge (2024) আইফোনের বৈশিষ্ট্য সহ লঞ্চ হল, ডিসপ্লে, ক্যামেরা ও ব্যাটারি দুর্দান্ত

লঞ্চ হল Motorola Edge (2024) স্মার্টফোন। ডিভাইসটি মিড-রেঞ্জের অধীনে এসেছে এবং বর্তমানে আমেরিকার বাজারে উপলব্ধ। Edge সিরিজের অধীনে আসা এই নয়া হ্যান্ডসেট কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭এস জেন ২ প্রসেসর দ্বারা চালিত। এছাড়া এটি ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের কার্ভড pOLED ডিসপ্লে, ৫০ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, ২৫৬ জিবি স্টোরেজ, ডলবি অ্যাটমস সমর্থিত স্টেরিও স্পিকার ইউনিট, অন-স্ক্রীন ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার এবং ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারির মতো ফিচার অফার করে। চলুন বিস্তারে Motorola Edge (2024) ফোনের দাম ও বিশেষত্ব সম্পর্কে খুঁটিনাটি জেনে নেওয়া যাক…

 

Motorola Edge (2024) স্পেসিফিকেশন

মোটোরোলা এজ (২০২৪) হল সংস্থার প্রথম স্মার্টফোন যাতে কুইক বাটন দেওয়া হয়েছে। জানিয়ে রাখি, এই কুইক বাটন অ্যাপল আইফোন ১৫ প্রো মডেলে বিদ্যমান অ্যাকশন বাটনের অনুরূপ কাজ করবে। এই বাটন ডিভাইসের বাম দিকে অবস্থিত, যার মাধ্যমে বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

 

ভেগান লেদার ডিজাইনের সাথে আসা নয়া মোটোরোলা এজ (২০২৪) ফোনে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ দ্বারা সুরক্ষিত ৬.৬-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (২৪০০×১০৮০ পিক্সেল) কার্ভড pOLED ডিসপ্লে রয়েছে। এই টাচস্ক্রিন – যা ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৪০২ পিপিআই পিক্সেল ডেনসিটি, ১৩০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ৭২০ হার্টজ PWM ডিমিং এবং DCI-P3 কালার গ্যামেট সাপোর্ট করে। ভালো পারফরম্যান্সের জন্য কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭এস জেন ২ প্রসেসর এবং অ্যাড্রেন ৭১০ জিপিইউ সাপোর্ট করে। এটি ৮ জিবি LPDDR4X র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সহ এসেছে। তবে এই ফোনে অতিরিক্তভাবে আরো ৮ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম বুস্ট ফিচার সাপোর্ট করে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে অ্যান্ড্রয়েড ১৪ প্রি-লোডেড থাকছে। এর সাথে দুটি অ্যান্ড্রয়েড ওএস আপগ্রেড এবং তিন বছরের সফ্টওয়্যার সাপোর্ট মিলবে।

 

Motorola Edge (2024) স্মার্টফোনে ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি হল – এফ/১.৮ অ্যাপারচার ও OIS সহ ৫০ মেগাপিক্সেল Sony LYT700C প্রাইমারি সেন্সর + ১২০° ফিল্ড-অফ-ভিউ, এফ/২.২ অ্যাপারচার ও ম্যাক্রো ভিশন সহ ১৩ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স৷ এদিকে ডিভাইসের সামনে এফ এফ/২.৪ অ্যাপারচার যুক্ত ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি শ্যুটার দেওয়া হয়েছে।

 

অন্যান্য বৈশিষ্ট্যের কথা বললে, মোটোরোলা ব্র্যান্ডের এই নয়া ফোনে ডলবি অ্যাটমস সমর্থিত স্টেরিও স্পিকার সেটআপ আছে। নিরাপত্তার জন্য মিলবে অন-স্ক্রীন ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার ও থিঙ্কশিল্ড। কানেক্টিভিটি বিকল্প হিসাবে সামিল রয়েছে ডুয়াল সিম (ন্যানো+ই-সিম) স্লট, ৫জি, ওয়াই-ফাই ৬ই ৮০২.১১এক্স, ব্লুটুথ ৫.২, এনএফসি, জিপিএস, গ্যালিলিও, গ্লোনাস, ইউএসবি ৩.১ পোর্ট, এবং ডিসপ্লেপোর্ট ১.৪।

 

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য Motorola Edge (2024) ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি রয়েছে, যা ৬৮ ওয়াট টার্বোপাওয়ার ফাস্ট চার্জিং ও ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি সাপোর্ট করে। এই ব্যাটারি ৩৬ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ অফার করে। এছাড়া ডিভাইসটি – এসজিএস ব্লু লাইট রিডাকশন ও এসজিএস মোশন ব্লার রিডাকশনের সুবিধা দেয়। এর পরিমাপ ১৫৯.৬৩×৭১.৯৯×৮.০৯ মিমি এবং ওজন ১৭৪ গ্রাম। ফোনটি ধুলো এবং জল প্রতিরোধের জন্য IP68 রেটিং প্রাপ্ত।

 

Motorola Edge (2024) দাম

Motorola Edge (2024) ফোন ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ যুক্ত একক ভ্যারিয়েন্টে এসেছে। এর দাম রাখা হয়েছে ৫৫০ ডলার (প্রায় ৪৫,৯০০ টাকা)। এটি আগামী ২০ই জুন থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কেনার জন্য উপলব্ধ হবে। ভারত সহ বিশ্ববাজারে এই ফোন কবে লঞ্চ হবে তা এখনো ঘোষণা করা হয়নি।


Discover more from BestMaza

Subscribe to get the latest posts to your email.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from BestMaza

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker