iQOO 12 নিয়ে উত্তেজনায় ফুটছে ক্রেতারা, ভারত সহ বিশ্ববাজারে মুক্তি পেতে একমাসও নেই!

আইকো এই মাসেই চীনে তাদের ফ্ল্যাগশিপ iQOO 12 সিরিজ লঞ্চ করেছে, যা স্ট্যান্ডার্ড iQOO 12 ও iQOO 12 Pro নামে দুটি মডেল নিয়ে গঠিত। অন্যদিকে, ভারতেো iQOO 12 5G-এর লঞ্চ নিয়ে উত্তেজনার পারদ চড়ছে। কোম্পানি ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে যে, এটি আগামী ১২ ডিসেম্বর লঞ্চ হবে ভারতের বাজারে। পাশাপাশি গ্লোবাল মার্কেটেও iQOO 12 5G খুব শীঘ্রই মুক্তি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। সেই জল্পনা আরও বাড়িয়ে ফোনটি এবার ইন্দোনেশিয়ার এসডিপিপিআই (SDPPI) সার্টিফিকেশন সাইটে উপস্থিত হয়েছে।

 

iQOO 12 5G পেল SDPPI-এর অনুমোদন

 

চীনা ব্র্যান্ডটি বিশ্ববাজারে আইকো ১২ ৫জি-এর লঞ্চের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। ডিভাইসটিকে এখন ইন্দোনেশিয়ার এসডিপিপিআই (SDPPI) সার্টিফিকেশন ওয়েবসাইট I220 মডেল নম্বর সহ দেখা গেছে। যদিও সার্টিফিকেশন থেকে ফোনটি সম্পর্কে সেভাবে কিছু জানা যায়নি। তবে আইকো ১২ ৫জি যেহেতু ইতিমধ্যেই চীনে লঞ্চ হয়েছে, তাই এর স্পেসিফিকেশনগুলি আর অজানা নেই। আশা করা যায় এই আইকো ফ্ল্যাগশিপটির গ্লোবাল ভ্যারিয়েন্টটিও একইরকম বৈশিষ্ট্য অফার করবে। চলুন এগুলির ওপর চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

 

iQOO 12 (চীনা সংস্করণ)-এর স্পেসিফিকেশন

 

আইকো ১২-এ রয়েছে ৬.৭৮ ইঞ্চির ফ্ল্যাট অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে, যা ১,২৬০ x ২,৮০০ পিক্সেল রেজোলিউশন এবং ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেট অফার করে। এটি কোয়ালকমের লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ৩ চিপসেটের সাথে আইকোর সেল্ফ-ডেভেলপ করা ই-স্পোর্টস চিপ কিউ১ দ্বারা চালিত। গ্রাফিক্সের জন্য প্রসেসরের সাথে অ্যাড্রেনো ৭৫০ জিপিইউ যুক্ত রয়েছে। আইকো ১২ অ্যান্ড্রয়েড ১৪-ভিত্তিক অরিজিনওএস ৪ (OriginOS 4) কাস্টম স্কিনে চলে। ডিভাইসটি বিভিন্ন কনফিগারেশন অফার করে, যার মধ্যে রয়েছে ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ, ১৬ জিবি র‍্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ এবং ১৬ জিবি র‍্যাম + ১ টিবি স্টোরেজ।

 

ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে, iQOO 12-এ ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা, একটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের পেরিস্কোপ টেলিফোটো ক্যামেরা এবং একটি ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা সমন্বিত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত রয়েছে। আর সেলফির জন্য, ফোনের সামনে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা বিদ্যমান।

 

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, iQOO 12 ফোনটি ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে, যা ১২০ ওয়াট পর্যন্ত ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এছাড়া, এই হ্যান্ডসেটের কানেক্টিভিটি অপশনে সামিল রয়েছে ৫জি সাপোর্ট, ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ এ/বি/জি/এন/এসি/৬/৭ সহ ট্রিপল ব্যান্ড সাপোর্ট এবং ওয়াই-ফাই ডাইরেক্ট, ব্লুটুথ ৫.৪ এবং এনএফসি।


Discover more from BestMaza

Subscribe to get the latest posts to your email.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from BestMaza

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker