BrandsView All

Show More Brands
August 15, 2022

BestMaza.Org

Unboxing | Technical News | Reviews

WhatsApp আনল ‘চ্যাট হিস্ট্রি মাইগ্রেশন’ ফিচার, Android থেকে iOS-এ চ্যাট ব্যাকআপ ট্রান্সফার হবে সহজেই

Spread the love

বিগত কয়েক মাস ধরে পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর, অবশেষে অ্যান্ড্রয়েড (Android) থেকে আইওএস (iOS)-এ এবং এর বিপরীত ক্ষেত্রে অর্থাৎ আইওএস থেকে অ্যান্ড্রয়েডে চ্যাট হিস্ট্রি ট্রান্সফার করার বহু প্রতীক্ষিত অপশন চালু করল WhatsApp (হোয়াটসঅ্যাপ)। আসলে বর্তমান সময়ে বারবার হ্যান্ডসেট পাল্টানো কোনো নতুন বিষয় নয়। সেক্ষেত্রে নতুন ফোন কিনলেও, WhatsApp-এর চ্যাট ব্যাকআপ ফিচারের মাধ্যমে Google Drive (গুগল ড্রাইভ) থেকে পুরোনো মেসেজ, মিডিয়া ফাইল ইত্যাদি সেই ফোনে সহজেই ডাউনলোড করা যায়। কিন্তু ভিন্ন অপারেটিং সিস্টেমের ফোন কিনলে এই ব্যাকআপ হিস্ট্রি তাতে ডাউনলোড করা এতদিন পর্যন্ত সহজ কাজ ছিল না। বিশেষ করে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে আইফোনে বা তদ্বিপরীতে এই কাজের জন্য থার্ড পার্টি অ্যাপগুলির ওপর নির্ভর করতে হত। কিন্তু এখন আর এই ঝামেলা থাকবে না, কারণ WhatsApp এখন বিশ্বব্যাপী চ্যাট মাইগ্রেশনের ফিচার রোল আউট করেছে।

এক্ষেত্রে একটি টুইট পোস্ট করে ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটি নতুন চ্যাট হিস্ট্রি ট্রান্সফারের সুবিধার সার্বজনীন উপলব্ধতার কথা জানিয়েছে। সংস্থার মতে, এই নয়া বিকল্পের জেরে এখন ইউজাররা নিজেদের পছন্দের ডিভাইসগুলিতে স্যুইচ করার স্বাধীনতা পাবেন।

কীভাবে অ্যান্ড্রয়েড থেকে আইফোনে WhatsApp চ্যাট হিস্ট্রি ট্রান্সফার করবেন?

১. প্রথমে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ‘মুভ টু আইওএস’ অ্যাপ ইনস্টল করুন এবং অ্যাপ খুলে অন-স্ক্রিন প্রম্পটগুলি অনুসরণ করুন।

২. এক্ষেত্রে আপনার আইফোনে একটি কোড প্রদর্শিত হবে। অ্যান্ড্রয়েড ফোনে সেই কোড এন্টার করুন।

৩. ‘কন্টিনিউ’ (Continue) অপশনে ট্যাপ করুন এবং পুনরায় অন-স্ক্রিন প্রম্পটগুলি অনুসরণ করুন৷

৪. এবার ট্রান্সফার ডেটা স্ক্রিন থেকে ‘হোয়াটসঅ্যাপ’ অপশন নির্বাচন করুন।

৫. অ্যান্ড্রয়েড ফোনে প্রদত্ত ‘স্টার্ট’ (START) বাটনে ক্লিক করুন এবং ট্রান্সফারের ডেটা প্রস্তুত হওয়ার জন্য অপেক্ষা করুন৷ এই ডেটা প্রস্তুত হয়ে গেলে অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে অ্যাকাউন্ট সাইন আউট হয়ে যাবে।

৬. আগের ধাপটি সম্পন্ন হলে ফের ‘মুভ টু আইওএস’ অ্যাপ খুলুন এবং ‘নেক্সট’ (Next) বাটনে ক্লিক করুন।

৭. এরপর অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে আইফোনে ডেটা ট্রান্সফার প্রক্রিয়া চালিয়ে যেতে প্রদত্ত ‘কন্টিনিউ’ অপশনে ক্লিক করুন এবং চ্যাট ট্রান্সফার সম্পূর্ণ হয়েছে তা নিশ্চিত করতে ‘মুভ টু আইওএস’-এর কনফার্মেশনের জন্য অপেক্ষা করুন।

৮. আইফোনে অ্যাপ স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপের লেটেস্ট ভার্সন ইনস্টল করুন এবং পুরনো ডিভাইসে ব্যবহৃত ফোন নম্বর ব্যবহার করে লগ ইন করুন।

৯. ‘অ্যালাও’ (Allow) বাটনে ক্লিক করুন এবং ট্রান্সফার করা চ্যাট ব্যাকআপ আইফোনে ডাউনলোড হওয়ার অপেক্ষা করুন।

নিঃসন্দেহে হোয়াটসঅ্যাপের এই নতুন ফিচার অত্যন্ত সুবিধাজনক, তবে ইউজারদের অ্যান্ড্রয়েড থেকে আইওএসে বা এর ঠিক উল্টো ক্ষেত্রে চ্যাট হিস্ট্রি ট্রান্সফারের সময় বেশ কিছু জিনিস অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। এগুলি হল –

১. অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনটি ললিপপ (Lollipop) ওএস অর্থাৎ অ্যান্ড্রয়েড ৫ সফ্টওয়্যার বা তার পরবর্তী অপারেটিং সিস্টেম চালিত হতে হবে। অন্যদিকে, আইফোনের ক্ষেত্রে তা নিদেনপক্ষে আইওএস ১৫.৫ (iOS 15.5) চালিত হওয়া প্রয়োজন।

২. অ্যান্ড্রয়েড ফোনে হোয়াটসঅ্যাপের ২.২২.৭.৭৪ ভার্সন এবং আইফোনে হোয়াটসঅ্যাপের ২.২২.১০.৭০ আইওএস ভার্সন বর্তমান কিনা চেক করতে হবে।

৩. যেকোনো ডিভাইসে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য পুরনো অর্থাৎ একই ফোন নম্বর ব্যবহার করতে হবে।

৪. আইফোন অবশ্যই ফ্যাক্টরি নতুন হতে হবে বা ‘মুভ টু আইওএস’ অ্যাপের সাথে পেয়ার করে অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে ডেটা সরানোর জন্য ফ্যাক্টরি সেটিংস রিসেট করতে হবে।

৫. চ্যাট হিস্ট্রি ট্রান্সফার করার সময় উভয় ডিভাইসই সংযুক্ত থাকতে হবে একটি পাওয়ার সোর্সের সাথে।

৬. উভয় ডিভাইসকে একই ওয়াই-ফাই (Wi-Fi) নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত করতে হবে অথবা আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসটিকে আইফোনের হটস্পটের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

%d bloggers like this: