BrandsView All

Show More Brands
July 7, 2022

BestMaza.Org

Unboxing | Technical News | Reviews

Oukitel WP19: বিশ্বের প্রথম 21000mAh ব্যাটারির ফোন বাজারে এল, চার্জ ফুরোতে পারবেন?

Spread the love

আজকাল বাজারে উপলব্ধ অনেক ফোনে ৫০০০ এমএএইচের (mAh) ব্যাটারি দেখা যায়। সময়ের সাথে সাথেই এহেন অধিক সক্ষমতার ব্যাটারিযুক্ত স্মার্টফোন বাজারে সুলভ হয়েছে। এমনকি ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারিতে সন্তুষ্ট না হলে বর্তমানে একজন ৬০০০ বা ৭০০০ এমএএইচের ব্যাটারিযুক্ত স্মার্টফোন বাজার থেকে সংগ্রহ করতে পারেন। কিন্তু সম্প্রতি এক চীনা কোম্পানি এতটাই বেশি ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সম্পন্ন স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে, যা প্রতিদ্বন্দ্বীদের স্রেফ এক লহমায় পিছনে ফেলতে পারে। আসুন এই ‘বিস্ময়কর’ ব্যাটারি সক্ষমতার স্মার্টফোন সম্পর্কে বিশদে জেনে নিই।

বাজারে ২১০০০ এমএএইচ ব্যাটারির নয়া স্মার্টফোন নিয়ে এল চীনা ব্র্যান্ড Oukitel

আজ্ঞে হ্যাঁ, স্বল্পখ্যাত চীনা ব্র্যান্ড Oukitel -ই সেই সংস্থা যারা সদ্য ২১০০০ এমএএইচের বিশাল ব্যাটারি সম্পন্ন স্মার্টফোন লঞ্চ করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে! এক্ষেত্রে স্বীকার করে নেওয়া ভালো যে জনসমক্ষে আসা ডিভাইসটি এযাবৎকালের মধ্যে লঞ্চ হওয়া সর্বোচ্চ ব্যাটারি ক্ষমতার স্মার্টফোন। এটি Oukitel WP19 নামের সঙ্গে বাজারে এসেছে। ফোনের প্রস্তুতকারক চীনা সংস্থা জানিয়েছে ২৭ ওয়াট ওয়্যারড চার্জিংয়ের মাধ্যমে মোট ৪ ঘন্টায় ২১০০০ এমএএইচ (mAh) ব্যাটারির এই ফোনটি সম্পূর্ণ চার্জ করা যাবে। অর্থাৎ অনুমান করা যায়, এক ঘন্টা চার্জে রাখলে ফোনটি অন্তত ১ দিনের ইউসেজ (usage) প্রদান করবে।

এছাড়াও ফোন প্রস্তুকারক সংস্থার বক্তব্য, সম্পূর্ণ চার্জ করা অবস্থায় Oukitel WP19 অন্তত এক সপ্তাহের ব্যবহারিক অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। তাছাড়া একথাও বলা চলে যে আলোচ্য স্মার্টফোন আমাদের পুরো ৩৬ ঘন্টার ভিডিও প্লেব্যাক, ১২২ ঘন্টার কলিং, ১২৩ ঘন্টার মিউজিক উপভোগ বা ২,২৫২ ঘন্টার (৩ মাসের সামান্য বেশি) স্ট্যান্ডবাই সাপোর্ট প্রদান করতে পারে! অর্থাৎ অল্প কথায় বলতে গেলে Oukitel WP19 একটি পাওয়ারব্যাঙ্কের মতোই কাজ করতে সমর্থ।

Oukitel WP19 স্মার্টফোনের ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

আমাদের আলোচ্য ডিভাইস অপেক্ষাকৃত মোটা গড়নের সাথে বাজারে এসেছে। এটি জল ও ধূলোরোধী IP68, MIL-STD-810G রেটিং ও একটি সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সহ উপলব্ধ। এছাড়া এতে আছে মিড-রেঞ্জ Mediatek Helio G95 4G চিপসেট। এই মুহূর্তে এটি ৮ জিবি র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত সম্প্রসারণযোগ্য স্টোরেজ বিকল্পের সাথে কেনা যাবে।

ডিসপ্লের কথা বলতে গেলে নয়া Oukitel WP19 ডিভাইসে ৬.৭৮ -ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস এলসিডি প্যানেল রয়েছে, যা ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করবে। ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে পাওয়া যাবে ৬৪ মেগাপিক্সেলের (MP) প্রাইমারি সেন্সর, ২০ মেগাপিক্সেলের নাইট ভিশন এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স। এর সাথে সেলফি তোলার জন্য এতে পুরো ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা প্রদান করা হয়েছে। সর্বোপরি এটি এনএফসি (NFC), ব্লুটুথ ৫.০, অ্যান্ড্রয়েড ১২ ও গুগল সাপোর্ট (Google Support) সহ উপলব্ধ।

Oukitel WP19 ডিভাইসের দাম

AliExpress প্ল্যাটফর্মে আলোচ্য Oukitel WP19 ডিভাইসের দাম ৭৪৪ মার্কিন ডলার (প্রায় ৫৭,৭৪৬ টাকা)। ফোনটি ভারতে আসবে কিনা তা কোম্পানির তরফে জানানো হয়নি।

%d bloggers like this: