BrandsView All

Show More Brands
August 14, 2022

BestMaza.Org

Unboxing | Technical News | Reviews

আগেই ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিল, নতুন iPhone 14 সিরিজ আসতে পারে দশ হাজার টাকা বেশি দামে

Spread the love

মার্কিন টেক জায়ান্ট Apple বর্তমানে তাদের পরবর্তী প্রজন্মের iPhone 14 ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন সিরিজের ডিভাইসগুলি বিশ্ব বাজারে লঞ্চ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। আশা করা যায়, এই সিরিজে অন্তর্ভুক্ত iPhone 14, iPhone 14 Pro, iPhone 14 Max এবং iPhone 14 Pro Max মডেলগুলি কোম্পানির প্রথা মতো আগামী সেপ্টেম্বর বা অক্টোবর মাস নাগাদ উন্মোচন করা হবে। ইতিমধ্যেই এই হ্যান্ডসেটগুলি নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। বিভিন্ন রিপোর্ট থেকে উঠে এসেছে একাধিক তথ্যও। যেমন জানা গেছে, এই সিরিজের প্রো মডেলগুলির ডিসপ্লে থেকে অ্যাপল তাদের চিরাচরিত বক্সি নচটি বাদ দেবে, আর তার পরিবর্তে ফেস রেকগনিশন এবং সেলফি ক্যামেরার জন্য একটি পিল আকৃতির কাট-আউট এবং একটি পাঞ্চ হোল কাট-আউট ডিসপ্লের শোভা বৃদ্ধি করবে। তবে এখন এক বিশ্লেষক জানিয়েছেন যে, আসন্ন iPhone 14 সিরিজটি পূর্বসূরি সিরিজের তুলনায় খরচসাপেক্ষ হতে পারে এবং যারা পরবর্তী প্রজন্মের আইফোন কেনার জন্য অপেক্ষা করছেন তাদের স্ট্যান্ডার্ড মডেলের জন্য আরও বেশি অর্থ ব্যয় করতে হতে পারে। বিশ্লেষকের মতে, iPhone 14 সিরিজের দাম iPhone 13 সিরিজের চেয়ে ১০০ ডলার বেশি হতে পারে, যা আগ্রহী ক্রেতাদের জন্য অবশ্যই একটি বড় ধাক্কা হবে।

iPhone 14 হবে পূর্বসূরির তুলনায় খরচ বহুল

ভারতের বাজারে উচ্চ আমদানি শুল্ক, জিএসটি চার্জ এবং আরও অন্যান্য কারণে মার্কিন বাজারের তুলনায় আইফোনের দাম এমনিতেই বেশ বেশি হবে। আর এখন ওয়েডবুশ সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক ড্যান ইভস জানিয়েছেন যে, সমস্ত কনজিউমার ইলেকট্রনিক্স নির্মাতাদের জন্য উৎপাদন এবং উপাদানের খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে। অ্যাপল এই অতিরিক্ত ব্যয়ভার তাদের আইফোন ১৪-এর গ্রাহকদের ওপর চাপাতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে। তাই স্বাভাবিকভাবে এই সিরিজের ডিভাইসগুলি হাই প্রাইস ট্যাগ বহন করতে পারে।

এছাড়াও, ড্যান ইভস বলেছেন যে, আইফোন ১৪-এর দাম পূর্বসূরির তুলনায় ১০০ ডলার (প্রায় ৮০০০ টাকা) বেশি হতে পারে। তার মতে, পুরো সাপ্লাই চেইন জুড়ে দাম বাড়ছে এবং মার্কিন সংস্থাটি তাই তাদের আপকামিং সিরিজের মাধ্যমে এই খরচের ভার ক্রেতাদের দিকে ঠেলে দেবে। আর বিশ্লেষকের এই বক্তব্যটি যদি সত্যি হয় তাহলে, আইফোন ১৪ মডেলটির দাম গত বছরের ফোনের তুলনায় প্রায় ১০,০০০ টাকা বাড়তে পারে। বর্তমানে ভারতে ১০০ ডলারের মূল্য প্রায় ৮,০০০ টাকার কাছাকাছি। কিন্তু অ্যাপল সাধারণত তাদের প্রোডাক্টের মূল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে ১ ডলারকে ১০০ টাকা হিসাবে গণ্য করে থাকে। তাই, দাম বৃদ্ধি প্রায় ১০,০০০ টাকার কাছাকাছি হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

জানিয়ে রাখি, গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে লঞ্চ হওয়া iPhone 13 স্ট্যান্ডার্ড মডেলটির ভারতের বাজারে প্রারম্ভিক মূল্য ৭৯,৯৯০ টাকা। অর্থাৎ আপকামিং iPhone 14 হ্যান্ডসেটটির দাম এদেশে ৯০,০০০ টাকার কাছাকাছি হতে পারে। যদিও আশা করা হচ্ছে যে, অ্যাপল এই মাত্রায় দাম বৃদ্ধি করবে না। এমনকি বিশ্লেষক এও মনে করেন যে, অ্যাপল নতুন ডিভাইসগুলির ক্ষেত্রে তাদের পুরোনো দামের রেঞ্জে আটকে থাকার সিদ্ধান্ত নিতে পারে, যা এগুলির বিক্রিতে সহায়তা করবে।

উল্লেখ্য, এমন সম্ভাবনাও রয়েছে যে সংস্থাটি নির্দিষ্টভাবে iPhone 14 সিরিজের Pro মডেলগুলির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে, কারণ এগুলি ডিজাইন এবং ক্যামেরার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য আপগ্রেডের সাথে আসবে। Pro ভ্যারিয়েন্টগুলি নতুন চিপসেট দ্বারা চালিত হবে বলেও জানা গেছে। তবে এই ক্ষেত্রে Apple iPhone 14 স্ট্যান্ডার্ড মডেলটি বড় কোনো আপগ্রেড অফার করবে না বলেই আশা করা যায়। শোনা যাচ্ছে, অ্যাপল আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর একটি লঞ্চ ইভেন্টের আয়োজন করবে, যেখানে iPhone 14 সিরিজের ওপর থেকে পর্দা সরানো হবে।

%d bloggers like this: