BrandsView All

Show More Brands
December 2, 2022

BestMaza.Org

Unboxing | Bengali Daily Tech News | Reviews By TechnoMaza

Jio Fiber: ফের Airtel, Vi-কে পেছনে ফেলল Jio; ১০০ জনের ৮০ জন ব্যবহার করছেন সংস্থার এই পরিষেবা

Spread the love

টেলিকম পরিষেবা সরবরাহের নিরিখে শীর্ষস্থান জুটেছিল আগেই, তবে সাম্প্রতিক বছরগুলিতে Reliance Jio (রিলায়েন্স জিও) যে ব্রডব্যান্ড সেক্টরেও আধিপত্য স্থাপন করতে সক্ষম হয়েছে – সে খবরও সামনে এসেছে বারবার। তবে এখন মনে হচ্ছে, ব্রডব্যান্ড সার্ভিস প্রোভাইডার হিসেবে Jio-কে টেক্কা দিতে অন্যান্য বেসরকারি সংস্থাগুলির বেশ বেগ পেতে হবে, কারণ Jio Fiber (জিও ফাইবার) নামক পরিষেবাটি হালফিলে ওয়্যারলাইন ব্রডব্যান্ড সেগমেন্টেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। কোম্পানির মতে, নতুন ওয়্যারলাইন গ্রাহকদের প্রায় ৮০ শতাংশ Jio Fiber-এর কানেকশন নিয়েছেন। গড় হিসেবে বললে প্রতি ১০ জনের ৮ জন এই পরিষেবা নিয়েছেন। এর ফলে Jio-র এই পরিষেবা ওয়্যারলাইন ব্রডব্যান্ড সেগমেন্টে এক নম্বর অবস্থান ধরে রাখতে সক্ষম তো হয়েছেই, পাশাপাশি এর সাফল্যও তুঙ্গে পৌঁছেছে। এমনকি টেলিকম নিয়ন্ত্রক TRAI (ট্রাই)-এর পরিসংখ্যানও এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বাজারের অর্ধেক শেয়ারই Jio-র ঝুলিতে

রিপোর্ট অনুযায়ী, ওয়্যারলেস ব্রডব্যান্ড পরিষেবা সরবরাহে জিও ৫৩ শতাংশ মার্কেট শেয়ার নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। এমনকি সংস্থার ব্রডব্যান্ড সার্ভিস ডেটা খরচের ক্ষেত্রেও এগিয়ে রয়েছে মুকেশ আম্বানির সংস্থার পরিষেবা। এক্ষেত্রে জিওর ৬০% ‘ডেটা ট্র্যাফিক মার্কেট শেয়ার’ রয়েছে, যা এয়ারটেল (Airtel) এবং ভোডাফোন আইডিয়া (Vi)-এর সম্মিলিত খরচের চেয়ে বেশি। কারণ সংস্থার নেটওয়ার্কে গ্রাহকরা প্রতি মাসে গড়ে ২০.৮ জিবি ডেটা ব্যবহার করছেন, একই সময়ে তাদের ভয়েস কলিংয়ের লিমিট ছুঁয়েছে ১,০০০ মিনিটেরও বেশি। এছাড়া ত্রৈমাসিক ফলাফল আরো দেখায় যে, রিলায়েন্স জিওর প্রতি ব্যবহারকারীপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ১৭৫.৭ টাকায়। বছরের হিসেবে বললে, ২০২২-২৩ আর্থিক বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে (জানুয়ারি থেকে মার্চ অবধি সময়ে) রিলায়েন্স জিও ইনফোকমের নেট মুনাফা প্রায় ২৪ শতাংশ বেড়ে ৪,৩৩৫ কোটি টাকা হয়েছে৷

Jio Fiber-এর সুবিধা

জিও ফাইবার হল একটি ফাইবার-টু-দ্য-হোম ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড পরিষেবা যা রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের ৪১তম বার্ষিক সাধারণ সভায় (AGM)-এ ২০১৮ সালে ‘জিও গিগাফাইবার’ (Jio GigaFiber) হিসেবে পরিষেবাটি প্রথম ঘোষণা করা হয়েছিল। এখন এই পরিষেবার সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া প্ল্যানটির দাম ৪৯৯ টাকা। এটি আদতে একটি পোস্টপেইড প্ল্যান যাতে ইউজাররা ৩০ এমবিপিএস স্পিডসহ আনলিমিটেড ডেটা পাওয়া যায়। এছাড়াও, এটিতে ৪০০টিরও বেশি টিভি চ্যানেল পাওয়া যায়।

আবার কেউ যদি ৫৯৯ টাকা দামী প্ল্যানটি বেছে নেন তাহলে তিনি ৫৫০টিরও বেশি টিভি চ্যানেল উপভোগ করতে পারবেন। অন্যদিকে ৮৯৯ টাকার প্ল্যানে ১০০ এমবিপিএস স্পিড এবং ৫৫০টিরও বেশি টিভি চ্যানেলের সুবিধা পাওয়া যাবে। এটিও একটি পোস্টপেইড প্ল্যান যা Disney+Hotstar প্ল্যাটফর্মের সাবস্ক্রিপশন বিনামূল্যে অফার করবে।

%d bloggers like this: