BrandsView All

Show More Brands
July 7, 2022

BestMaza.Org

Unboxing | Technical News | Reviews

WhatsApp-এ পার্সোনাল চ্যাট হাইড করতে চান? গোপনীয়তা বজায় রাখতে বেছে নিন এই সহজ পদ্ধতি

Spread the love

এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে, বর্তমান ডিজিটাল যুগে বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় ইন্সট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হল WhatsApp (হোয়াটসঅ্যাপ)। হাতে স্মার্টফোন আছে অথচ তাতে WhatsApp নেই, এখনকার দিনে এমন মানুষের খোঁজ পাওয়া এককথায় দুষ্কর বললেই চলে। এই অ্যাপটি ব্যবহার করে একাধিক মানুষের সাথে চ্যাট করার পাশাপাশি বিভিন্ন ছবি এবং গুরুত্বপূর্ণ ফাইল শেয়ার করা হয়। এদিকে সাধারণভাবে যখন আপনি কারোর সাথে চ্যাট করেন, তখন সেই কন্টাক্টসটি WhatsApp-এর চ্যাট লিস্টে থেকে যায়, যে কারণে ফোনটি যদি অন্য কারোর হাতে গিয়ে পড়ে এবং ওই ব্যক্তি যদি অ্যাপটি ওপেন করেন, তাহলে তিনি কিন্তু আপনার যাবতীয় পার্সোনাল চ্যাট খুব সহজেই পড়ে ফেলতে পারবেন। তবে আপনি চাইলেই কিন্তু এই প্ল্যাটফর্মটিতে করা যে-কোনো চ্যাট অন্যদের থেকে হাইড করে রাখতে পারেন। আর তা কীভাবে করবেন, সেটাই আমরা এই প্রতিবেদনে জানাতে চলেছি৷

 

যারা জানেন না তাদের বলি, অন্যদের থেকে নিজের পার্সোনাল চ্যাট হাইড করার জন্য আপনি ‘আর্কাইভড চ্যাটস’ (Archived Chats) ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য প্রথমে আপনার ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ওপেন করুন। অ্যাপটি ওপেন করলে আপনি আপনার সম্পূর্ণ চ্যাট লিস্টটি দেখতে পাবেন। এবার আপনি যে চ্যাটটিকে হাইড করতে চান, সেটির ওপর ট্যাপ করে হোল্ড করে রাখুন, তাহলে আপনি স্ক্রিনের উপরে বেশ কয়েকটি অপশন দেখতে পাবেন। এই বিকল্পগুলির মধ্যে ডানপাশ থেকে দ্বিতীয় অপশনটিকে লক্ষ্য করলে বক্সের মতো একটি আইকন আপনার চোখে পড়বে, এটি হল আর্কাইভ আইকন। এখন এই বক্সটির উপর ক্লিক করলেই আপনার চুজ করা চ্যাটটি হাইড অর্থাৎ আর্কাইভড হয়ে যাবে। আপনি চাইলে এই পদ্ধতিতে একাধিক চ্যাট অতি অনায়াসে লোকচক্ষুর আড়ালে রাখতে সক্ষম হবেন।

এক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি যে, চ্যাট হাইড করা বলতে মূলত চ্যাট আর্কাইভ করে রাখাকেই বোঝায়। আর্কাইভ করে রাখলে সংশ্লিষ্ট চ্যাটটিকে আর আপনার চ্যাট লিস্টে দেখা যাবে না। ফলে অন্য কারোর হাতে যদি আপনার ফোনটি গিয়ে পড়ে, তাহলে তিনি চট করে সেই ব্যক্তিটির নাম আপনার চ্যাট লিস্টে খুঁজে পাবেন না। তাহলে এখন প্রশ্ন হল, চ্যাট লিস্ট থেকে তো সেই ব্যক্তির নাম উড়ে গেল, তাহলে এবার আপনি যদি সেই ব্যক্তিকে চ্যাট করতে চান তবে তা কীভাবে করবেন? সেক্ষেত্রে বলে রাখি যে, চ্যাট লিস্ট থেকে ওই ব্যক্তির নামটি গায়েব হয়ে গেলেও আর্কাইভড (Archived) নামক একটি ফোল্ডার চ্যাট লিস্টে আবির্ভূত হবে। এই ফোল্ডারটিতে ক্লিক করলেই আপনি আর্কাইভ করে রাখা যাবতীয় কন্টাক্টসগুলিকে দেখতে পাবেন এবং অতি অনায়াসে তাদের সাথে চ্যাট করতে পারবেন।

আবার আপনি আর্কাইভ করে রেখেছেন এমন কোনো চ্যাট থেকে যদি আপনাকে মেসেজ করা হয়, তাহলে কিন্তু সেটি আপনি সরাসরি আপনার চ্যাট লিস্টে দেখতে পাবেন না বা আসবে না নোটিফিকেশনও (এর জন্য আলাদা সেটিং রয়েছে)। ওই আর্কাইভড ফোল্ডারের মধ্যেই মেসেজটি আসবে। ফলে আপনি যদি সেটিকে দেখতে চান, তাহলে আর্কাইভড ফোল্ডার ওপেন করে আপনাকে মেসেজটি দেখতে হবে।

 

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি যে, আপনি চাইলেই কিন্তু হাইড করা যে-কোনো চ্যাটকে আনহাইডও করতে পারেন। অর্থাৎ সোজা কথায় বললে, আপনি যে চ্যাটগুলিকে আর্কাইভ করেছেন, সেগুলিকে আনআর্কাইভ করে আপনি আবার WhatsApp-এর হোমস্ক্রিনে ফিরিয়ে আনতে পারেন। এর জন্য আর্কাইভড ফোল্ডারে ঢুকে আপনি যে চ্যাটটিকে আনহাইড করতে চান, সেটির উপর ট্যাপ করে হোল্ড করুন। তাহলেই স্ক্রিনের ওপরে আবার আপনি আর্কাইভ আইকনটি দেখতে পাবেন। সেটিতে ট্যাপ করলেই আর্কাইভড ফোল্ডার থেকে বেরিয়ে চ্যাটটি আবার অ্যাপের হোমস্ক্রিনে ফিরে আসবে।

%d bloggers like this: